স্বপ্ন দেখি, জাপান যাব

S M Rassel Created: August 20 (Thursday), 2020, Last Updated: August 20 (Thursday), 2020 Education
স্বপ্ন দেখি, জাপান যাব
আকর্ষণীয় সুযোগ এবং জাপানে ক্যারিয়ার

এবি রাফি 

 আমরা উচ্চ মাধ্যমিক পড়াশুনা শেষ করি স্বপ্ন দেখি উচ্চ শিক্ষা ও একটি ভালো মানের চাকরি। কিন্তু অনেকেই আমরা জানি না কোথায় পড়াশুনা করবো বা পড়াশুনা শেষ করে কি করবো? এই চিন্তায় অনেকেই আমরা ঘুম হারাম করে ফেলি। বাংলাদেশে লক্ষ্ লক্ষ্ শিক্ষার্থী উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে বের হচ্ছে। প্রত্যেকেরই বুক ভরা স্বপ্ন থাকে কেউ ডাক্তার হবে, কেউ ইঞ্জিনিয়ার হবে অথবা কেউ পাইলট হবে। আমরা যখন ভার্সিটি ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হই মনে হয় নিমিষেই সব শেষ হয়ে গেলো। হাজারো স্বপ্ন শুকনো পাতার মতো ঝড়ে যায়। অথচ আমরা এইচএসসি পরীক্ষার পর যেই যুদ্ধ করেও জয় করতে পারি না, তার পিছনেই বার বার ছুটি। ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার বা পাইলট থেকে যে আরও অনেক স্বপ্ন আছে আমরা জানি না।

আজকে এমন একটি দেশের কথা বলবো যে দেশে যেতে অন্য সব যোগ্যতা থেকে শুধু ভাষা জানলেই আপনি যেতে পারবেন। আপনার কাঙ্ক্ষিত স্বপ্ন পূরণ করতে আপনাকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

 

জাপান- প্রশান্ত মহাসাগর ও পৃথিবীর পূর্ব ও উত্তর কোণে প্রায় ৬৮০০ টি দ্বীপ নিয়ে গড়ে ওঠা ছোট একটি দেশ; পৃথিবীজুড়ে দেশটি নিয়ে মানুষের মাঝে বিস্ময়ের সীমা নেই। প্রযুক্তির দিক দিয়ে গোটা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। এই দেশটির এমন কোন আবিষ্কার নেই, মানব জাতির কল্যাণ বয়ে আনে নাই। উন্নত প্রযুক্তি ও কোয়ালিটি পণ্য বলতেই আমরা জাপানকে চিনি। পৃথিবীর যত বড় বড় নামি দামি কোম্পানি, বলা যেতে পারে সবই জাপানিজ। শুধু তাই নয় পৃথিবীর সবচেয়ে ভদ্র ও বিনয়ী জাতি হিসেবে পরিচিত জাপানিরা। অর্থনৈতিক দিক দিয়েও এরা এগিয়ে । বিশ্বের তৃতীয় বড় অর্থনীতির এই দেশের সবচেয়ে বড় শিল্প খাত হচ্ছে ইলেকট্রনিক পণ্য।

 

 

এই দেশটি যেমন উন্নত, তেমনি শিক্ষাব্যবস্থার দিক দিয়ে অনেক এগিয়ে চলছে। প্রতি বছরই গোটা বিশ্ব থেকে  শিক্ষার্থীরা পারি জমাচ্ছেন।সেই সাথে শিক্ষাজীবন শেষ করে, নিজেকে দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলছেন। জাপানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কাজ করার সুযোগও পাচ্ছেন। এইচএসসি পাসের পর উচ্চশিক্ষার জন্য যাঁরা বিদেশে যেতে আগ্রহী, তাঁরা সূর্যোদয়ের দেশ বেছে নিতে পারেন জাপানকে।

 

আপনাকেই খুঁজছে জাপান:

জাপানে প্রায় সব মিলিয়ে ১২০০ ইউনিভার্সিটি, ভোকেশনাল স্কুল অ্যান্ড ল্যাংগুয়েজ স্কুল রয়েছে। বর্তমানে জাপানে প্রায় দেড় লাখের মতো বিদেশি শিক্ষার্থী রয়েছে। জাপানে জন সংখ্যা কমে যাওয়ায়, কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পেয়েছে ও তার সাথে কর্মীর সংখাও কমে গিয়েছে। যার জন্য জাপান সরকার বিদেশি শিক্ষার্থীদের কোটা বৃদ্ধি করছে। বিদেশী শিক্ষার্থীদের স্কলারশিপসহ যাবতীয় সাপোর্ট প্রোগ্রামের জন্য জাপান ১৫.৩ বিলিয়ন ইয়েন বরাদ্দ রেখেছে।

 

জাপানে প্রায় ৮০০ টি জাপানিজ কোম্পানি গবেষণা করে দেখা গেছে, বিদেশি স্নাতক ডিগ্রিধারী্দের প্রাধান্য বেশি দেয়। অনেক কোম্পানিতে বিদেশি স্নাতক স্নাতক ডিগ্রী প্রাপ্তদের কোটা বরাদ্দ থাকে। জাপানিজ ভাষা শেখা থাকলে, এ সব সুযোগ-সুবিধা লুফে নিতে পারবেন।

 

যেসব জাপানিজ ভাষা প্রতিষ্ঠানসমূহে শিখতে পাড়বেনঃ

 

ড্যাফোডিল জাপান আইটি

যোগাযোগ ঃ ইউনিয়ন হাইটস ০১, লেভেল ৮, ৫৫-২, ওয়েস্ট পান্থপথ, ঢাকা. 

ফোনঃ ০২-৯১১২২৮০, ০১৮৪৭১৪০১১০

 

 

 

Similar Post You May Like